«

»

Jan 16

Print this Post

ইলেক্টিক মোটর নিয়ে বিভিন্ন প্রশ্ন ও উত্তরঃ-

বৈদ্যুতিক মোটর কি?

উত্তরঃ মোটর  হচ্ছে এমন একটি ডিভাইস যেটা ইলেকট্রিক এনার্জি বা বিদ্যুৎ শক্তিকে মেকানিক্যাল এনার্জি বা যান্ত্রিক শক্তিতে রুপান্তর করে তাই বৈদ্যুতিক মোটর।

আরো বলতে গেলে বৈদ্যুতিক মোটর হল এমন একটি কৌশল এবং ব্যবস্থা, যার মাধ্যমে বৈদ্যুতিক শক্তি যান্ত্রিক শক্তিতে রুপান্তরিত হয়। প্রকারভেদ অনু্যায়ী এর গঠন ও ক্ষমতা নিয়ন্ত্রিত হয়। বৈদ্যুতিক মোটর তড়িত প্রকৌশলের আলোচ্য একটি বিষয়। বৈদ্যুতিক মোটর মূলত ফ্যারাডের আবেশ সূত্রের উপর ভিত্তি করে তৈরী করা হয়ে থাকে। মোটরে প্রবাহিত তড়িৎ এর ধরন অনুযায়ী
মোটর সাধারনত দুই ধরনের হয়ে থাকে। যেমনঃ
এসি মোটর
ডিসি মোটর
১) এসি মোটর : এসি মোটরের সাথে আমরা কমবেশি সব্বাই পরিচিত । বৈদ্যুতিক পাখা, পানির পাম্প ইত্যাদি সবই এসি মোটর এর উদাহরণ । (আমরা এখানে মূলত ডিসি মোটর এর উপর বেশি গুরুত্ব দিব ।
২) ডিসি মোটর : বাজারে বেশ কয়েক প্রকারের ডিসি মোটর পাওয়া যায় । এদের প্রত্যেকেই বিশেষ বিশেষ কাজে পটু । এদের ভিতর কারো RPM(Revolution Per Minute) বেশি , কারো RPM কম , কারো টর্ক বেশি, কারো টর্ক কম ইত্যাদি ।

motor

একটি ইন্ডাকশন মোটরের প্রধান দুটি অংশ থাকে ?

১। ষ্টেটর

২। রোটর

তিন ফেজ ইন্ডাশন মোটরের ডায়াগ্রাম অঙ্কন করতে কি কি টেস্ট জানা দরকার ?

১। নো- লোড টেস্ট

২। শর্ট সার্কটি টেস্ট

৩। স্টেটর রেজিস্ট্যান্স টেস্ট

সিনক্রোনাস মটর কি?
যে মটর সিনক্রোনাস গতিবেগে ঘুরে তাকে সিনক্রোনাস মটর বলে।

সিনক্রোনাস গতিবেগে Ns= 120f/p

সিনক্রোনাস মোটরের কোথায় কি ধরনের সরবরাহ দেওয়া হয়?

উত্তরঃ স্টটরে ৩ ফেজ এ.সি এবং রোটরে ডি.সি সরবরাহ দেওয়া হয়।

বিভিন্ন প্রকার মোটর চিত্র আকারে একটি লিস্ট দেওয়া হল ।

motor

সিনক্রোনাস মোটরের বিভিন্ন টর্কের তালিকা-

১। স্টার্টিং টর্ক

২। রার্নিং টর্ক

৩। পুল-ইন টর্ক

৪। পুল আউট টর্ক

৫। Reluctance Torque

৬। Locked Rotor Torque
ক) গিয়ারলেস মোটর : এটি খুবই সাধারণ একটি মোটর । ছোট বাচ্চাদের খেলনা গাড়িতে , ক্যাসেট প্লেয়ারের ভিতর এটি দেখা যায় ।
এর RPM খুবই বেশি । অর্থাৎ এই মোটর খুবই দ্রুত ঘুরতে পারে । কিন্তু এদের টর্ক খুবই কম । অর্থাং সাধারণত আগুল দিয়েই এদের ঘূর্ণনকে থামিয়ে দেওয়া যায় । স্বাধারণত এদের পেছনের দিকে দুটি টার্মিনাল থাকে । এই টার্মিনাল দুটিতে ব্যাটারির সংযোগ দিলেই সাধারণত এটি ঘুরতে শুরু করে । ব্যাটারির পোলারিটি চেঞ্চ করে দিলেই এটি আবার উল্টাদিকে ঘুরতে শুরু করে ।
খ) গিয়ারড মোটর : এটি গিয়ারলেস মোটরের মতই , শুধু এটির সামনে একটি গিয়ারবক্স যুক্ত থাকে । এটির RPM এবং টর্ক গিয়ারলেস মোটর এর সম্পূর্ণ বিপরীত । অর্থাৎ এর RPM খুব কম । এর ঘূর্ণন মাত্রা গিয়ারলেস মোটর এর তুলনায় অনেক কম । কিন্তু এদের টর্ক খুবই বেশি । অর্থাং সাধারণত আগুল দিয়েই এদের ঘূর্ণনকে থামিয়ে দেওয়া যায় না ।
এর কানেকশন সম্পূর্ণ গিয়ারলেস মোটর এর মতই ।
গ) স্টিপার মোটর : এর নাম থেকেই এর কার্যকারিতা সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যায় ।
এটি মূলত step by step ঘুরতে পারে । অর্থাৎ একে ইচ্ছা করলে যে কোন Angle-এ যে কোন ডিগ্রী-কোণে ঘুরানো যায় । এটির ঘূর্ণন পদ্ধতি একটু ভিন্ন । এটি ঘুরাতে স্টিপার-মোটর-ড্রাইভার এর প্রয়োজন । স্টিপার মোটর ড্রাইভিং পদ্ধতি এর বর্ননা ও এর সার্কিট ডায়াগ্রাম নিয়ে পরবর্তী কোন এক পর্বে আলোচনা করা হবে ।
ঘ) সার্ভো মোটর : সার্ভো মোটর অত্যাধিক টর্ক সম্মত । আগুল দিয়ে চেপে ধরে এর গতিকে থামিয়ে দেওয়া যায় না । এটি সাধারণত খুব ভারী জিনিস মুভ করার জন্য ব্যবহৃত হয় । তবে এই মোটরের লিমিটেশন রয়েছে ।

  • আরও জানতে এখানে ক্লিক করুন।

 

3 comments

  1. Md. Mehedi hasan sohel

    current transformer & potential transformer use

  2. sajid

    Motor এর starting current কত?

  3. Rony voltage lab blog

    তথ্যবহুল লেখা ভাই। তবে সিটি ও পিটি নিয়ে যদি বিস্তারিত আলোচনা করতেন।
    ধন্যবাদ।

Leave a Reply to Rony voltage lab blog Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>